চিতল মাছের মুইঠ্যা রেসিপি | chital macher muitha | Chital fish

চিতল মাছের মুইঠ্যা chital macher muitha এক পুরানো অতি জনপ্রিয় রান্না। বর্তমানে চিতল মাছের খুব একটা দেখা মেলে না। চিতল মাছ খেতে খুবি সুস্বাদু।   

উপকরনঃ

  • চিতল মাছ ১ কেজি
  • আলু ডুমো করে কাটা 
  • হলুদ গুড়ো
  • লঙ্কা গুড়ো
  • জিরা গুড়ো
  • ধনে গুড়ো,
  • আদা বাটা
  • পিঁয়াজ কুচি
  • রসুন কুচি
  • সরষে তেল
  • গরম মশলা

চিতল মাছের মুইঠ্যা chital macher muitha প্রস্তুতিঃ

চিতল মাছ- চিতল মাছের মুইঠা করতে গেলে প্রথমে চিতল মাছটাকে মুইঠা বানানোর জন্য প্রস্তুত করতে হবে। চিতল মাছে খুব ছোট ছোট আঁশ থাকে। তাই একটা ছুরি বা চামচ দিয়ে ভাল করে আঁশ ছারিয়ে নিতে হবে। এরপর পিঠ বরাবর লম্বা লম্বি করে কেটে নিতে হবে। মুইঠা বানানোর জন্য পিঠের অংশটা নেওয়া হয়। পেটের দিকের অংশটা চিতল মাছের অন্য কোন পদ রান্না করা যেতে পারে। এরপর পিঠের লম্বা অংশটাকে একটা কাঠ দিয়ে পিটিয়ে নরম করে নিতে হবে। তারপর চামচে করে মাছ থেকে মাংস চেঁচে বার করতে হবে। এবার মাংস থেকে কাঁটা বেছে নিয়ে একটা বাটিতে তুলে রাখতে হবে।

আলু- চিতল মাছের মুইঠা খানিকটা মাছের ডালনার মতো করে প্রস্তুত করা হয়। তাই সাধারণ মাছের ডালনাতে যেমন বড় বড় আলুর টুকরো দেওয়া হয়, চিতল মাছের ক্ষেত্রেও তাই হয়। অনেক সময় বড় আলু টুকরো দিলে সেদ্ধ হতে চায়না। তাই আগে থাকতে প্রেসার কুকারে দু-একটা সিটি দিয়ে তারপর রান্না করলে আলু গুলো নরম হয়।

আদা পেঁয়াজ ও রসুন- চিতল মাছের মুইঠা chital macher muitha রান্না করতে গেলে আদা, পিয়াজ ও রসুন এই তিনটি উপাদানে খুবই প্রয়োজন। তাই পরিমাণ মতো আদা কেটে কুচি করে ছাল ছাড়িয়ে নিতে হবে ও তার সাথে 3-4 খানি মাঝারি সাইজের পেঁয়াজ নিয়ে খোসা ছাড়িয়ে কুচি করে নিতে হবে। আর রসুনের প্রায় পাঁচটি রসুনের কোয়া ও ছাড়িয়ে নিয়ে রাখতে হবে। প্রথমে যখন মাছের মুইঠা গুলো বানানো হয় তখন মাছের সাথে পিয়াজ কুচি, আদা কুচি ও রসুন কুচি মেশানো হয় ও গোল গোল করে মুইঠা পাকানো হয়। আবার পরবর্তীকালে যখন মাছের ডালনা টা প্রস্তুত করা হয় তখনও করাতে গরম তেলের মধ্যে আদা বাটা রসুন কুচি ও পেঁয়াজ কুচি দিয়ে বানানো হয়। 

  ডাব চিংড়ি বাড়িতে সহজেই রান্না পদ্ধতি | Daab Chingri Recipe

চিতল মাছের মুইঠ্যা chital macher muitha প্রনালীঃ 

  • Step_1: চিতল মাছটাকে ভালভাবে আঁশ ছাড়িয়ে নিয়ে টুকরো করে চামচে করে মাংস টাকে বার করে নিতে হবে (প্রস্তুতি অংশে দেখে নিন)। এরপর ওতে আদা কুচি, রসুন কুচি, পেঁয়াজ কুচি, ধনে গুড়ো, জিরা গুড়ো, লঙ্কা গুড়ো দিয়ে ভাল করে মেখে মুঠো মুঠো করে পাকিয়ে রাখতে হবে।
  • Step_2: তারপর একটি জায়গায় গরম জলে দিয়ে ফোটাতে হবে। ওই ফুটন্ত গরম জলে যে মাছের মণ্ড গুলো তৈরী করা হয়েছিল, সেগুলো দিয়ে দিতে হবে। যখন ওগুলো ভেসে আসবে তখন ছেঁকে নিয়ে তুলে নিয়ে একটা পাত্রে রাখুন । তারপর কড়াতে সরষের তেল গরম করে ওই গুলি ভেজে নিতে হবে। একটু লাল লাল হলে তুলে রাখুন।
  • Step_3: এরপর ওই মাছ ভাজা তেলে রসুন, পেঁয়াজ গুলো ভালোভাবে ভেজে নিন। এরপর আলুটাকে ভাল করে ভেজে নিন। এবার আদা বাটা, ২ চামচ হলুদ গুড়ো, ১ চামচ জিরা গুড়ো, ১ চামচ  ধনে গুড়ো দিয়ে ভাল করে কষুন। ভাল করে কষার পর দেখবেন তেল ছাড়তে সুরু করেছে।
  • Step_4: এরপর জল দিয়ে, পরিমান মত লবন ও চিনি দিয়ে আলুটাকে ভাল করে সেদ্ধ করে নিন। তারপর আলু সেদ্ধ হয়ে গেলে মুইঠ্যা গুলো দিয়ে দিতে হবে। এরপর মাখোমাখো হয়ে গেলে গরম মসলা দিয়ে নামিয়ে নিন। তাহলেই তৈরি হয়ে যাবে চিতল মাছের মুইঠা chital macher muitha। 

পরিবেশনঃ

গরম গরম চিতল মাছের মুইঠা গরম ভাতের সাথে পরিবেশন করা হয়। 

সোয়া ঘুগনি | সোয়াবিন ও মটর দিয়ে বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন

নুডুলস রোল সম্পূর্ণ ঘরোয়া পদ্ধাতিতে বানানো যায়।

Soyabean Muitha | সম্পূর্ণ নিরামিষ ভাবে বানানো স্বাদে ভরপুর সয়াবিন মুইঠ্যা

Note:

  • চিতল মাছের মুইঠা chital macher muitha একটি সাবেকি ঐতিহ্য পূর্ণ রান্না।
  • সিদ্ধ করা মুইঠা গুলো যখন করাতে  দোলনার মধ্যে দেয়া হবে তখন বেশি নাড়াচাড়া করলে অনেক সময় মুইঠা গুলো ভেঙে যেতে পারে তাই একটু ফুটিয়ে নিয়ে সামান্য নাড়াচাড়া করে নাবিয়ে নিতে হবে।
  চিংড়ি মাছের মালাইকারি। Best Prawn Malai Curry

FAQ:

চিতল মাছ দিয়ে মুইঠা ছাড়া আর কি কি রান্না করা যায়?

চিতল মাছের অনেক রান্না হয় তারমধ্যে বৈঠায় সবথেকে বেশি জনপ্রিয় রান্না। অন্যান্য মাছের মত চিতল মাছ দিও কালিয়া বা মাছের ঝাল ইত্যাদি রান্না করা যায়। চিতল মাছের মুইঠা বানানোর সময় মাছের পিঠের দিকের অংশ থেকে মাংস বার করা হয়। কিন্তু পিঠের দিকের অংশটা কাটা অবস্থায় পড়ে থাকে। এখন এই পেটের দিকে কাটা অংশটা চাইলে খুব ভালো মাছের কালিয়া হতে পারে।  

Leave a Comment