চিতই পিঠা তৈরী পদ্ধতি, এক অন্য স্বাদের পিঠা

chitoi-pitha-recipe

চিতই পিঠা পুরাতন মা ঠাকুমাদের সাবেকী রান্না গুলোর মধ্যে পরে। বর্তমানে আমরা এই ফাস্ট ফুড ও বিরিয়ানীর যুগে এই ট্রাডিশনাল খাবারের স্বাদ থেকে বঞ্চিত।

উপকরণঃ

  • চালের গুড়ি,
  • লবণ,
  • উষ্ণ জল,
  • লোহার কড়াই,
  • ১/৪ কাপ নারকেল গুড়া,
  • ১/২ চামচ বেকিং পাউডার, 

প্রস্তুতিঃ

চিতই পিঠা তৈরি করতে গেলে প্রথমে চালের গুড়ি, একটু সুজি ও গুড় একটা বাটিতে নিয়ে ভাল করে মেশাতে হবে। তারপর নারকেল কুরা বেটে নিয়ে ওই গোলা জিনিসটার ওপর দিয়ে আবার ভালো করে মেখে নিতে হবে। এরপর পাত্রটিতে স্বাদ মতো নুন দিতে হবে ও তারপর আবার ভাল করে মিশিয়ে নিতে হবে। এরপর গ্যাসে একটি লোহার করা বসিয়ে গরম করে নিতে হবে। অল্প হাতায় করে ব্যাটার তুলে করাতে দিতে হবে। তারপর ঢাকা দিয়ে যাবে আস্তে আস্তে জলের ছিটে দিয়ে দেখতে হবে ওটা সেদ্ধ হয়েছে কিনা। এবার একটা পিঠ ভাজা হয়ে গেলে, আর একটা দিক ভেজে নিতে হবে। তারপর গুড় দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

চিতই পিঠা chitoi pitha recipe প্রনালীঃ

Step_1:  প্রথমে একটা পাত্রে 2 কাপ পরিমাণ চালের গুড়ি নিয়ে তাতে সামান্য লবণ ও গরম জল দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে মেখে নিতে হবে। গরম জল দিয়ে চালের গুড়ি মাখার সময় প্রথমে গুঁড়িটি খুব চ্যাটচ্যাটে ও শক্ত অবস্থায় থাকে। এরপর বেশ কিছুক্ষন সময় ধরে চালের গুঁড়িটিকে ভালোভাবে ফেটাতে হবে। যত বেশি সময় ধরে গুঁড়িটাকে মাখা হবে ততই চিতই পিঠা খেতে ভালো হবে। এরপর ব্লেন্ডারে বাড়িতে এক মিনিট ধরে ব্লেন্ড করতে হবে। এরপর দেখবেন চালের গুড়ি ঘন পাতলা হয়ে গেছে। তারপর এই মিশ্রণে প্রয়োজন মতো অল্প জল মিশিয়ে ভালোভাবে নেড়ে নিতে হবে।

Step_2: এখন ব্যাটার তৈরি হয়ে গেলে অনেকে এই মিশ্রণে সুজি, নারকেলের কুড়ো, গুড় ইত্যাদি দিয়ে থাকেন। এরপর গ্যাসের ফ্লেম হাই করে একটা লোহার করাতে ভালো করে সাদা তেল ব্রাশ করে দিতে হবে।

  মাছের কালিয়া | macher kalia recipe, Bengali fish curry

Step_3: তারপর গ্যাসের ফ্লেমটা মিডিয়াম থেকে হাই অবস্থায় রেখে একটি হাতা দিয়ে পিঠার ব্যাটারটা ভালো করে গুলিয়ে এক হাতা বেটার করাতে ঢেলে দিয়ে করাটা ঢাকা দিয়ে দিতে হবে।

Step_4: এরপর প্রায় আড়াই থেকে তিন মিনিট পিঠাটা ভালোভাবে করতে হবে। তারপর করার ঢাকনা খুলে ছুরি বা খুন্তির সাহায্যে পিঠাটাকে তুলে ফেলতে হবে। 

Step_5: একটু বেশিক্ষণ পিঠা ঢেকে রান্না করলে কড়াই লাগা পিঠার অংশটি হালকা ব্রাউন হয়ে যায় ও অপর অংশটি নর্মাল সাদা থাকে। এই চিতই পিঠা খেতে খুবই সুস্বাদু। পাউরুটির মত ফাপা প্রকৃতির হয়। এই পিঠা তরকারি, মাংস ইত্যাদি সবকিছু সাথেই ভালোভাবে খাওয়া যায়। 

চিতই পিঠা পরিবেশনঃ

চিতই পিঠা অন্য যেকোন পিঠার থেকে সম্পূর্ণ ভিন্ন। তাই এই পিঠার স্বাদ ও পরিবেশন সম্পূর্ণ আলাদা। চিতই পিঠা খেতে সাধারণ পিঠার মত মিষ্টি হয় না এই পিঠা গুড়, তরকারি, ঘুগনি ও মাংস ইত্যাদির সাথে পরিবেশন করা হয়ে থাকে।

টিপসঃ

চিতই পিঠা রান্না করার সময় স্টিলের কড়াই বা ননস্টিক কড়া করা ব্যবহার করা হয় না। এর পরিবর্তে আগেকার দিনের লোহার কড়াই ব্যবহার করা হয়। এই লোহার কড়াই ব্যবহারের ফলে খুব সহজেই পিঠে গুলিকে কড়াই থেকে তোলা যায়। আর লোহার কড়াইতে যা স্বাদ হয় তা কখনোই আধুনিক ননস্টিক কড়াইতে হয় না। তাই এইসব সাবেকি রান্না করার সময় ছোটখাটো জিনিস গুলোর দিকেও লক্ষ্য রাখতে হয়।

FAQ:

 চিতই পিঠা ছড়া আর কি কি ধরনের পিঠা বাঙালিরা খেয়ে থাকে?

বিভিন্ন ধরনের পিঠা আমাদের বাঙালির পৌষ সংক্রান্তি উৎসবে হয়ে থাকে। তার মধ্যে দুধ পিঠা, সিদ্ধ পিঠা , পাটিসাপটা, ভাজা পিঠা ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য। তবে বর্তমানে এগুলো ছাড়াও নানা ধরনের ফিউশন পিঠা তৈরি হচ্ছে।

  মজাদার চিলি সোয়াবিন বানিয়ে ফেলুন । Chilli Soyabean Recipe

Leave a Comment

Your email address will not be published.

You cannot copy content of this page